রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে রাজি হয়েছে মায়ানমার

ঢাকায় পররাষ্ট্র মন্ত্রনালয়ে অনুষ্ঠিত নিয়মিত এক ব্রিফিং এ পররাষ্ট্র সচিব মিজারুল কায়েস বলেন, বাংলাদেশ সরকার জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থা বা ইউএনএইচসিআর ও বার্মার সরকারের সাথে শরণার্থীদের ফিরিয়ে নেয়ার বিষয়ে উদ্যোগ জোরালো করেছে।কর্মকর্তারা বলছেন, বার্মার নির্বাচিত সরকার বাংলাদেশে অবস্থানকারী রোহিঙ্গা শরণার্থীদের ফিরিয়ে নিতে রাজী হয়েছে।

তিনি জানান, সম্প্রতি দু‘দেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রনালয়ের সচিব পর্যায়ের বৈঠকেও এ বিষয়টি আলোচিত হয়। মি. কায়েস বলছেন, প্রতিবেশী দুটো দেশের সম্মতির ভিত্তিতে সমঝোতা হলে সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন সহজ হবে। এবং বার্মা এ ব্যাপারে রাজী হয়েছে।

বর্তমানে কক্সবাজারের নয়াপাড়া এবং কুতু পালং শিবিরে ২৮,০০০ শরণার্থী রয়েছে বলে জানান মি. কায়েস।

তিনি বলেন, বৈধ শরণার্থীদের বাইরেও অনেক অবৈধ অনুপ্রবেশকারী বার্মা থেকে বাংলাদেশে এসেছেন যাদের মানবিক কারণে ফিরিয়ে দেয়া হয়নি।

পররাষ্ট্র সচিব অবশ্য তাদের সঠিক সংখ্যা বলেননি।

তিনি জানান, দুই দেশের অভিন্ন সীমান্তে মাদক পাচার ও অবৈধ অনুপ্রবেশ ঠেকাতে দুই দেশের সীমান্তরক্ষী বাহিনীর সদস্যদের যৌথ টহলের বিষয়ে এক প্রস্তাব নিয়েও তারা আলোচনা করেছেন।

পররাষ্ট্র সচিব আরো বলেন, বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অচিরেই বার্মা সফরে যাবেন । তবে এর দিনক্ষণ এখনো ঠিক হয়নি। - বিবিসি বাংলা

Comments